চাকরির খবরজাতীয়তথ্য ও প্রযুক্তিফলাফলশিক্ষাঙ্গনস্কিল

এন্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট পেইড কোর্স ফ্রি – by msbacademy

এন্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট কোর্স । যারা এন্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট কোর্স শুরু করার প্রয়োজন অনুভব করছেন। যেখানেই যাচ্ছেন আপনি শুনতে পাচ্ছেন এটা শিখতেই হবে, কিংবা আপনি খুব টেকনোলজি ঘেঁষা মানুষ তাই এন্ড্রয়েড এপ্লিকেশন সম্পর্কে তুমুল আগ্রহ কিন্তু জানেন না যে কিভাবে শুরু করবেন।

এমনও হতে পারে আপনি সবই জানেন, সবই বুঝেন কিন্তু কোথাও গিয়ে শেখার কোনো সুযোগ বা সময় পাচ্ছেন না ।হ্যাঁ উপরের সবকটি কারণের জন্যেই আপনি একদম সঠিক জায়গাটিতে এসেছেন। এন্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট কোর্স টি করার মাধ্যমে আপনি শিখতে পারবেন একেবারে শুরু থেকে এডভান্স লেভেল পর্যন্ত এন্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট সেটাও আবার ফ্রি-তে ।

এন্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট কি?

Android Apps  মূলত আমরা যে স্মার্টফোনগুলো ব্যবহার করে থাকি এই ফোনের ব্যবহৃত যে সমস্ত সফটওয়্যার গুলো রয়েছে সেগুলো কী বোঝায়। দৈনন্দিন কাজে বিভিন্ন কাজ করার জন্য মোবাইলে বিভিন্ন ধরনের সফটওয়্যার প্রয়োজন হয় এখানে একটি সফটওয়্যার অ্যাপস হচ্ছে Android Apps। এবং এই প্রত্যেকটি অ্যাপস বা সফটওয়্যার এক এক জন ব্যক্তি নির্মাণ করে থাকেন বা বানিয়ে থাকেন।  স্মার্টফোনের জন্য সফটওয়্যার বা এর বানানোর কাজটা হচ্ছে অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট এর মধ্যে পার্থক্যঃ

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ডিজাইন হলো একটি সফটওয়্যার এর বাহ্যিক দিকটা দেখতে কেমন হবে সেটা নির্ধারণ করা এবং ডেভেলপমেন্ট হচ্ছে একটি অ্যাপস এর ভেতর থেকে কিভাবে কাজ করবে সেটা নির্ধারণ করাই হচ্ছে Android Apps Development। অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট এবং অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ডিজাইন মূলত বেশিরভাগ ক্ষেত্রে একই ব্যক্তি ডিজাইন করে থাকেন। কিন্তু কিছু কিছু ক্ষেত্রে যে কোম্পানি এপটি বানিয়ে দেবে তারা এপস এর পেটার্ন নির্ধারণ করে দেন। এবং সে অনুযায়ী অ্যাপসটি তৈরি করতে হয়।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপার হিসাবে ক্যারিয়ারঃ

ক্যারিয়ার হিসেবে অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট নিতে চাইলে কেমন হবে সেটার উত্তর এককথায় বলতে গেলে অনেক ভালো অনেক ভালো এবং অনেক ভালো। বর্তমানে মোবাইল ইউজার যেমনটা বাড়ছে তেমনি মোবাইলে বিভিন্ন ধরনের ফিচার এবং বিভিন্ন ধরনের কাজের পরিধিও বাড়ছে তাই আপনারা চাইলেই যেকোনো রিলেটেড অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ/Android Apps  বানাতে পারেন। একজন ভাল মানের ডিজাইনার অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে কে প্রতিনিয়ত কাজের পাচ্ছে এবং তাদের ইনকাম দেখলে চোখ কপালে উঠে যাবে। আমার জানামতে বাংলাদেশ এবং ইন্ডিয়া তে অনেক অ্যাপ ডেভলপার রয়েছে যারা প্রতিমাসে 10 লক্ষ থেকে 20 লক্ষ টাকা ইনকাম করছে শুধুমাত্র অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে কাজ করে। এছাড়াও অনেকেই আবার বিভিন্ন স্পনসর এবং গুগল এডমোব ইউজ করে প্রচুর টাকা ইনকাম করছেন।

এন্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট পেইড কোর্স সম্পর্কেঃ

আপাতত এই কোর্সটি আপনারা যারা একদমই নতুন, শুধু হালকা পাতলা জাভা জানেন, অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড প্রোগ্রামিং (OOP) সম্পর্কে জানেন কিন্তু এন্ড্রোয়েড এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট কখনো শুরু করেননি, কিংবা একটু শুরু করার পর মনে হচ্ছে বিশাল এক সাগরে এসে পড়েছি তাই চুপ হয়ে গেছেন তাদের কথা চিন্তা করেই এই কোর্সটি সাজানো হয়েছে। কিভাবে নিজের পিসিকে এন্ড্রয়েড এপলিকেশন ডেভেলপ করার উপযোগী করে কিভাবে শুরু করা যায় সেটি জানবেন।

কোর্সটি কমপ্লিট করে বানিয়ে ফেলতে পারবেন মোটামুটি মানের একটা স্ট্যাটিক অ্যাপ্লিকেশন এবং আপনার পরিচিত মানুষদের এন্ড্রয়েড মোবাইলে শেয়ার করতে পারবেন । অ্যাপ্লিকেশন কিভাবে ডেভেলপ করতে হয়, কিভাবে এগিয়ে গেলে একটি বড় পূর্ণাঙ্গ অ্যাপ্লিকেশন কে অনেক কম বাগের উপস্থিতিতে বানিয়ে ফেলা যায় সেসব একদম হাতে কলমে দেখানো হয়েছে।

এন্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট কোর্স লিংকঃ 

এই কোর্সটি করতে চাইলে এখনি ডাউনলোড করে ফেলুন গুগোল ড্রাইভ থেকে…

কোর্স লিংক  – এন্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker